বিসিএস প্রিলিমিনারির প্রস্তুতি নির্দেশনা

বিসিএস পরীক্ষার ধাপগুলোর মাঝে, আমার মতে, প্রিলিতে পাশ করাই সবচেয়ে কঠিন। কিন্তু মজার ব্যাপার হল, এই প্রিলির মার্ক কিন্তু মোট নম্বরে যোগ হয় না। অর্থাৎ শুধু পাশ করলেই হবে, কত পেয়ে পাশ করলেন, তা ব্যাপার না।

আমি মোট ২টা প্রিলি দিয়েছি (৩৭তম ও ৩৮তম); দুটোতেই কোনরকমে উৎরে গিয়েছি। আমার এক্সপেরিয়েন্স বলে যে, প্রিলিতে ১১০+ মোটামুটি সেইফ মার্ক্স। এখন এই ১১০ নিশ্চিত করতে হলে, আপনি কতগুলো দাগাবেন বা কতটুকু সিলেবাসে বেশী জোর দিবেন তা শেষ পর্যন্ত আপ্নাকেই ঠিক করতে হবে; আর এই জন্য আগের বছরের প্রশ্নগুলো সল্ভ করার কোনো বিকল্প নেই (বিশেষ করে ৩৫তম-৩৮ তম এর প্রশ্ন)। আগের বছরের প্রশ্নগুলো দেখলে আরেকটা লাভ হবে। আপনি বুঝতে পারবেন যে এখন আর বিসিএসে কোন দেশের কি রাজধানী/ কোন দেশের কি মুদ্রা– এই ধরনের প্রশ্ন খুব একটা আসে না। এরকম ছোট বিষয়গুলো বিশ্লেষণ করে আপনি নিজেই নিজের স্ট্র্যাটেজি তৈরি করতে পারবেন।

আমার স্ট্র্যাটেজি ছিল ইংরেজি ও গণিতে (যেহেতু আমি বিজ্ঞানের ছাত্র) ভালো মার্ক্স আনা এবং মিনিমাম ১৬০ টা দাগানো। আপনার প্রস্তুতি যদি মোটামুটি ভালো থাকে তাহলে আমি মনে করি, একটু বেশী দাগানো ভালো। ধরেন আপনি ৪০ টা একটু এডুকেটেড গেস (মানে ৪ টা অপ্সানের মধ্যে আপনি কমিয়ে ২টায় নিয়ে আসতে পেরেছেন) করলেন; সেই ক্ষেত্রে ১৫ টাও যদি আপনার সঠিক হয়, তাহলে আপনি সব কেটেকুটেও ২.৫ মার্ক্স পাবেন।

বর্তমানে প্রিলি পরীক্ষা হয় ২০০ মার্ক্সে। মোট ২০০ টি এম,সি,কিউ প্রশ্ন থাকে, সময় থাকে ২ ঘন্টা। প্রতিটি শুদ্ধ উত্তরের জন্য ১ মার্ক পাবেন; কিন্তু ভুল উত্তরের জন্য বাড়তি ০.৫ মার্ক কাটা যাবে। অর্থাৎ একেবারে আন্দাজে দাগানোর চেয়ে খালি রেখে আসা ভালো।

২০০ মার্ক্সের মানবন্টনটা নিম্নরূপঃ
বাংলা- ৩৫
ইংরেজি- ৩৫
বাংলাদেশ- ৩০
আন্তর্জাতিক- ২০
ভূগোল, পরিবেশ, দুর্যোগ – ১০
বিজ্ঞান- ১৫
কম্পিউটার- ১৫
গণিত- ১৫
মানসিক দক্ষতা- ১৫
এথিক্স, মুল্যবোধ, সুশাসন- ১০

বাংলা-
বাংলার সিলেবাসের ২টা পার্ট- একটা সাহিত্য ভিত্তিক, আরেকটা হল ব্যাকরণ/ভাষা ভিত্তিক।
বাংলা সাহিত্যের সময়কালকে ৩ ভাগে ভাগ করা হয়- আদি/প্রাচীণ যুগ, মধ্য যুগ ও আধুনিক যুগ।
এই তিনের মধ্যে প্রথম ২ ভাগের সিলেবাস তুলনামুলক কম। এই পি,ডি,এফ টা (https://www.dropbox.com/…/Bangla%20LIterature%20by%20Dream-…)পড়লে একটা ভালো আইডিয়া চলে আসবে। সাথে “লাল নীল দীপাবলী” বইটিও অনেক কাজের, গল্পের মত করে লিখা।
আধুনিক যুগের ইনপুট/অাউটপুট রেসিও খুবই বাজে। অর্থাৎ, অনেক পড়ে গেলেও দেখা গেল এমন সব লেখক/কবি/বই এর নাম দিল, যা আপনি জীবনেও শুনেন নাই। কিন্তু তাই বলে তো আর একেবারে বাদ দিয়ে যাওয়া যাবে না। আমি মনে করি, বাজারে এভেইলেবেল একটা ডাইজেস্ট অন্তত পড়ে যাওয়া ভালো।

ব্যাকরণ পার্টের জন্য, ৯ম-১০ম শ্রেণীর ২য় পত্র বোর্ডের বইটা বেশ ভালো। সাথে একটা ডাইজেস্ট।

তারমানে সব মিলিয়ে পড়তে হবেঃ
১। যে কোন একটা প্রিলি ডাইজেস্ট
২। বাংলা ২য় পত্র বোর্ডের বই (৯ম-১০ম)
৩। মোজাহিদ ভাইয়ের পি,ডি,এফ
৪। লাল নীল দীপাবলী ( হুমায়ুন আজাদ)

ইংরেজি-
এইখানেও ২টা পার্ট- একটা সাহিত্য ভিত্তিক, আরেকটা হল ব্যাকরণ/ভাষা ভিত্তিক।

সাহিত্য অংশটায় একটু জোর দেওয়া বেশ লাভজনক, কারণ পপুলার সাহিত্যকর্ম থেকে অনেক প্রশ্ন আসে। আমি যেইটা করেছিলাম তা হল, ABC of English Literature (নীলক্ষেতে গেলেই পাবেন) বইটিতে একটা তালিকা আছে নান লেখক ও তাদের সাহিত্যকর্মের- আমি সেই তালিকা ঝাঁরা মুখস্ত করে ফেলেছিলাম। আজকাল শুনেছি আরো অনেক সাজানো বই এসেছে, আপনি নীলক্ষেতে গিয়ে একটু ঘেটে দেখতে পারেন। Quotations এর জন্য English for Competitive Exams নামক বইটা পড়েছিলাম। সীমিত সংখ্যক কোটেশন, কিন্তু বিখ্যাত সবগুলোই আছে ঐ বইয়ে।

ভোকাবুলারির জন্য ম্যাগুসের ফ্ল্যাশকার্ডের (https://drive.google.com/…/0B2uC_mK1Zj0tNHc1UGZSSmtwW…/view…) কমন ওয়ার্ড গুলো মোর দেন এনাফ। যারা জি,আর,ই-এর প্রস্তুতি নিয়েছেন তারা অন্য যে ওয়ার্ড লিস্ট পড়েছেন, তা পড়লেই অনেক।

বাকী অংশের জন্য যে কোনো একটা স্টান্ডার্ড গ্রামার বই যথেষ্ঠ। সাথে প্র্যাক্টিস করার জন্য English for Competitive Exams বইটা বেশ কাজের।

বাংলাদেশ বিষয়াবলি-

সিলেবাসে মোট ৯টি টপিক আছে। এক এক করে বলছিঃ

বাংলাদেশের জাতীয় বিষয়াবলীঃ
* মূলত প্রাচীনকালের বাংলার ইতিহাস হতে শুরু করে বর্তমান কাল পর্যন্ত ইতিহাস।
* প্রথমেই ডাইজেস্ট টা পড়ে ফেলতে হবে।
* এরপরে ১৯৪৭-১৯৭১ এর ইতিহাস ডিটেইলসে পড়তে হবে (৯ম-১০ম শ্রেণীর বোর্ডের বই ভালো সোর্স; ১) বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচিতি এবং ২) ইতিহাস– এই ২ বোর্ডের বই )
* সিলাবাসের প্রতিটা সাব-টপিক (১৯৪৭-১৯৭১) আলাদা আলাদা করে পড়তে হবে। প্রতিটির উইকি ও বাংলাপিডিয়া পেইজ দেখা যেতে পারে।
* উপরের গুলো সব শেষ হলে প্রাচীনকাল, মুঘল আমল ও ব্রিটিশ পিরিয়ড নিয়ে গভীরে পড়া যেতে পারে (৯ম-১০ম শ্রেণীর বই )। সংক্ষিপ্ত ওভারভিউয়ের জন্য এই ২টি পেইজ দেখা যেতে পারে-
১) https://en.wikipedia.org/wiki/History_of_Bengal
২) https://en.wikipedia.org/wiki/History_of_Bangladesh

বাংলাদেশের কৃষিজ সম্পদ
* ডাইজেস্ট
* নতুন সব ফল/শস্যের নাম থেকে প্রশ্ন আসে; বিগত ৬ মাসের কারেন্ট আফেয়ার্স পড়লেই হবে (কারেন্ট আফেয়ার্সের শুরুতেই অনেকগুলো এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর থাকে। সাধারণত ঐগুলো পড়লেই চলে)

বাংলাদেশের জনসংখ্যা, আদমশুমারী, উপজাতি
* ডাইজেস্ট
* কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (বিশেষত ঐ বছরের ইকনমিক রিভিউ নিয়ে যেই সংখ্যায় আলোচনা করা হয়েছে। কারো আগ্রহ থাকলে ইকনমিক রিভিউ-টাই ডিরেক্ট পড়া যেতে পারে; ফিনান্স মিনিস্ট্রির ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। কিন্তু মনে রাখা উচিত, প্রিলির জন্য ব্রেডথ ইস মোর ইম্পরট্যান্ট দেন ডেপথ। মানে বেশী গভীরে না গিয়ে; আগে সব কভার করতে হবে। )
* ৮ম শ্রেণীর বোর্ডের বইয়ের ১১তম অধ্যায় পড়া যেতে পারে। কারণ আদিবাসীদের নিয়ে কমপক্ষে ১টি প্রশ্ন আসার হার বেশী।

বাংলাদেশের অর্থনীতি
* ডাইজেস্ট
* কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (শুরুর এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর)
* ঐ বছরের ইকনমিক রিভিউ-এর সম্পর্কিত অংশ

বাংলাদেশের শিল্প ও বাণিজ্য
* ডাইজেস্ট
* কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (শুরুর এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর)
* ঐ বছরের ইকনমিক রিভিউ-এর সম্পর্কিত অংশ

বাংলাদেশের সংবিধান
* শুরুর থেকেই ডিটেইলসে পড়া ভাল। কারণ রিটেনে ভালো কাজে দেয়।
* ডাইজেস্ট থেকে ইতিহাসটা পড়ে নিতে হবে।
* এরপরে চাপ্টার( ১১ টি) ও অনুচ্ছেদ-গুলোর( ১৫৩ টি) শিরোনাম মুখস্ত করে ফেলতে হবে।
* সংশোধনী গুলো ভালো ভাবে পড়তে হবে (সময়কাল, প্রেক্ষাপট, মূলকথা)।
* তফসিল-গুলোর মূলকথা পড়ে ফেলতে হবে।

বাংলাদেশের রাজনৈতিক অবস্থা
* ডাইজেস্ট
* কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (শুরুর এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর। বিগত ৬ মাসে কোন নির্বাচন হয়ে থাকলে তা একটু দেখে নিতে পারেন।)

বাংলাদেশের সরকার ব্যবস্থা ও অন্যান্য (জাতীয় অর্জন/পুরস্কার/খেলাধুলা ইত্যাদি)
* বাংলাদেশের সংবিধান (সরকার ব্যবস্থা)
* ৯ম-১০ম শ্রেনীর পৌরনীতি বইয়ের ৫ম-৯ম অধ্যায়
* ডাইজেস্ট
* কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (শুরুর এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর)
* মুক্তিযুদ্ধ-ভিত্তিক স্থাপনা সমূহ (কোথায় অবস্থিত, স্থপতি কে)

আন্তর্জাতিক বিষয়াবলি-
* সবার আগে আন্তর্জাতিক নানা সংগঠনসমূহ নিয়ে পড়ে ফেলতে হবে ( ডাইজেস্ট থেকে পড়লেই এনাফ)
* বিগত ৬ মাসের কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স এবং কারেন্ট ওয়ার্ল্ড (২ টিই)
* ডাইজেস্ট থেকে নানা দেশ ও শহর কি নামে পরিচিত ( যেমন ঢাকা রিকশার শহর), কোন প্রণালী কথায় অবস্থিত তা দেখে ফেলতে হবে
* ডাইজেস্টে আরো অনেক কিছু আছে (ইতিহাস/মুদ্রা/রাজধানী)– চোখ বুলানো যেতে পারে; কিন্তু ইনপুট/আউটপুট রেসিও ভালো না।
* নানা কারেন্ট ইস্যু নিয়ে ইউটিউবের সামারি ভিডিও গুলো বেশ উপকারী (Vox, The Economist, TRT news, BBC etc)

ভূগোল, পরিবেশ
* বাংলাদেশের ম্যাপ (সীমানা, গুরুত্বপুর্ণ স্থাপনা, নদী, পর্যটন আকর্ষণ ইত্যাদি) খুব ভালো করে দেখতে হবে [ ভালো হয় নীলক্ষেত থেকে বি,সি,এস এর জন্য বিশেষায়িত ম্যাপ কিনে নিলে]
* ডাইজেস্ট
* এই পি,ডি,এফ টি পড়ে ফেলবেন
* বিগত ৬ মাসের কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স (শুরুর এম,সি,কিউ আর এক-কথায়-উত্তর)
* এই পি,ডি,এফ টিও দেখতে পারেন

সাধারণ বিজ্ঞান
* ইনপুট/আউটপুট রেসিও ভালো না।
* শুধু ডাইজেস্ট পড়াটাই ভালো।
* সাথে সময় থাকলে ৯ম-১০ম শ্রেনীর সাধারণ বিজ্ঞান বইটি পড়া যেতে পারে।

কম্পিউটার ও তথ্য প্রযুক্তি
* “ইজি”-র একটা বই আছে বাজারে। ঐটাই যথেষ্ট মনে হয়েছে।

গাণিতিক যুক্তি ও মানসিক দক্ষতা
* আগের বছরের প্রশ্নগুলো সল্ভ করে ফেললেই একটা আইডিয়া চলে আসবে।
* সময় থাকলে ডাইজেস্ট দেখা যেতে পারে।

নৈতিকতা মুল্যবোধ ও সুশাসন
* অনেকগুলো প্রশ্নই কমন সেন্স থেকে উত্তর করা যায়।
* নওলেজ বেসড যেসব প্রশ্ন আসে, সেইগুলোর ইনপুট/আউটপুট রেসিও ভালো মনে হয় নাই।
* সময় থাকলে ডাইজেস্ট দেখা যেতে পারে।

ওয়ালিদ মোহাম্মদ মুকু
৩৭তম বিসিএসে পররাষ্ট্র ক্যাডারে সুপারিশপ্রাপ্ত (২য় স্থান)

পুনরায় দেখতে নিজের টাইমলাইনে শেয়ার করে রাখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Don’t Miss our future updates. Get in touch for next...

New User? Create an Account


Login



Or


Lost Password?

Already have an account? Login


Signup




Or